শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:১৪ পূর্বাহ্ন

মেয়ে হত্যার বিচার দাবিতে পোস্টার সাঁটছেন এক অসহায় মা

মেয়ে হত্যার বিচার দাবিতে পোস্টার সাঁটছেন এক অসহায় মা

0 Shares

অনলাইন ডেস্ক:
মেয়ে হত্যার বিচার দাবিতে অশ্রুসিক্ত নয়নে পোস্টার সাঁটছেন এক অসহায় মা। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত গেটের সামনে এ দৃশ্য নজরে পড়ে। অসহায় এ মায়ের নাম মরিয়ম বেওয়া (৪৮)। বাড়ি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের ছোট সাতাইল বাতাইল গ্রামে।
এ মায়ের অভিযোগ, তার স্কুলপড়ুয়া মেয়ে প্রিয়াকে পৌরসভার বোয়ালিয়া নয়াপাড়া গ্রামের রহিম উদ্দিনের বিবাহিত ছেলে মোমিন মিয়া (৩৩) স্কুুলে যাওয়া-আসার সময় কুপ্রস্তাব দিত।
একপর্যায়ে বিয়ের প্রস্তাব দেয় মোমিন। কিন্তু প্রস্তাবটি প্রত্যাখ্যান করি। এতে মোমিন ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। বন্ধ হয়ে যায় মেয়ের স্কুলে যাওয়া। গত ১৮ মার্চ সন্ধ্যায় দলবল নিয়ে বাড়ি থেকে মেয়েকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যায় মোমিন।
অপহরণের পর থেকে মোমিন মেয়েকে বিভিন্ন স্থানে আটকে রেখে দিনের পর দিন ধর্ষণসহ শারীরিক নির্যাতন করে। একপর্যায়ে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। মোমিন ও তার লোকজন গত ৬ জুলাই তাকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে ৭ জুলাই মারা যায়।
এ ঘটনায় গোবিন্দগঞ্জ থানা-পুলিশ মামলা নিতে অস্বীকৃতি জানায়। বাধ্য হয়ে প্রিয়ার মা গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের আইনজীবী ফৈযী আল ফারাহ খানের মাধ্যমে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা করেন।

ট্রাইব্যুনাল মামলাটি শুনানি শেষে নিয়মিত মামলা হিসেবে রেকর্ড করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট থানা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। মামলা রেকর্ডের ১৫ দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। ফলে বিচারের বাণী নিভৃতে কাঁদছে।
অসহায় প্রিয়ার মা এখন মেয়ের হত্যাকারীদের ফাঁসি চেয়ে নিজেই বিভিন্ন অফিস-আদালতের দেয়ালে পোস্টার সাঁটছেন।
এ প্রসঙ্গে গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি একেএম মেহেদী হাসান জানান, এ ঘটনায় আদালতের নির্দেশে একটি মামলা নেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
বাংলা English
Copy link
Powered by Social Snap