বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৫০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
অবশেষে গণপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশলীর নিয়মবহির্ভুত টেন্ডারটি বাতিল

অবশেষে গণপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশলীর নিয়মবহির্ভুত টেন্ডারটি বাতিল

অভিযোগ

0 Shares

বরিশাল অফিস
অবশেষে অনিয়মের মাধ্যমে আহবানকৃত টেন্ডার বাতিলে বাধ্য হলেন বরিশাল গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী। মাত্র ১৮ ঘন্টার সময় দিয়ে টেন্ডার আহবান করার বিষয়টি ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের নজরে আসলে বরিশাল জোনের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আনোয়ার নজরুলের নির্দেশে টেন্ডারটি বাতিল করা হয়। আর ব্যাংক ক্লোজিং মুহূর্তে টেন্ডার আহবান করা ভুল হয়েছে বলে স্বীকার করেন নির্বাহী প্রকৌশলী জেরাল্ড অলিভার গুডা। তার দাবী কাজটি স্টিমিটার মুজাহিদুল ইসলাম করেছেন। তবে স্টিমিটার দাবী করেন, কাজটি নির্ধারিত ঠিকাদারকে পাইয়ে দেয়ার জন্যই স্বল্প সময়ের সুযোগ দিয়ে টেন্ডারটি আহবান করা হয়েছিল।
বরিশাল গণপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশল কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবন মেরামতের জন্য গত ১০ জানুয়ারী বিকাল ৩ টা ১৫ মিনিটে অনলাইনের মাধ্যমে দরপত্র আহবান করা হয়। যার এপিপি আইডি নম্বর ১৬৭১৯৭ ও টেন্ডার আইডি নম্বর ৫৩৫৮৫৬। মাত্র ১৮ ঘন্টার ব্যবধানে ১১ জানুয়ারী সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটে টেন্ডার সিকিউরিটি জমা দেয়ার শেষ সময় নির্ধারন করা হয়। ফলে নির্ধারীত সময়ের মধ্যে মাত্র তিনটি দরপত্র জমা হয়। যা শুধুমাত্র নির্বাহী প্রকৌশলীর আগে থেকে নির্ধারন করা পছন্দসই ঠিকাদাররাই দিয়েছেন বলে জানা গেছে। দরপত্র জমা দিতে ব্যর্থ হওয়া একাধীক ঠিকাদার জানান, পিপিআর এর নিয়ম অনুযায়ী টেন্ডার আহবানের পর দরপত্র জমা দেয়ার শেষ সময় কমপক্ষে তিনদিন হতে হবে। সেই সাথে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তিও দিতে হবে। কিন্তু এ টেন্ডারের ক্ষেত্রে তার কিছুই মানা হয়নি। যাতে সাধারন ঠিকাদাররা টেন্ডারে অংশগ্রহন করতে না পারে সেজন্যই এ ব্যবস্থা বলে জানান তারা। ঠিকাদাররা আরো অভিযোগ করেন, নির্বাহী প্রকৌশলী জেরাল্ড অলিভার গুডা তার পছন্দের ঠিকাদারকে কাজ পাইয়ে দেয়ার জন্যই নিয়ম বহির্ভুতভাবে বিকাল ৩ টার পরে দরপত্র আহবান করেন। যাতে আগে থেকে নির্ধারন করা ঠিকাদার কেবলমাত্র পে-অর্ডার জমা দিতে পারে। কেননা বিশেষ ব্যক্তি ছাড়া কোন ব্যাংক দুপুর আড়াইটার পরে লেনদেন করেনা। অন্যদিকে টেন্ডার লটারি ঠিকাদারদের উপস্থিতিতে করার নিয়ম থাকলেও তা কখনই হয়নি এ কার্যালয়ে। এমনকি দরপত্র জমাদানের পর ননরেসপনসিব করে পছন্দসই ঠিকাদারকে কাজ পাইয়ে দেয়ার সুয়োগ করে দেয়ার অভিযোগ রয়েছে এই নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে আরো অনেক অভিযোগ রয়েছে বলে জানান তারা। বিষয়টি নিয়ে তোলপার শুরু হলে নড়েচড়ে বসেন ঊর্ধতন কর্মকর্তারা। পরে নিয়ম বহির্ভুত আহবানকৃত টেন্ডারটি ১২ জানুয়ারী বাতিলের নির্দেশ দেন গণপূর্ত বরিশাল জোনের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আনোয়ার নজরুল। তিনি জানান, পিপিআর এর নিয়ম মেনেই টেন্ডার আহবান করতে হবে। এক্ষেত্রে সেটা মানা হয়নি। ব্যাংক ক্লোজিংয়ের সময় কোন টেন্ডার আহবান করা যায়না। তাই অফিসিয়ালভাবে নির্বাহী প্রকৌশলীকে টেন্ডার বাতিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এব্যাপারে নির্বাহী প্রকেীশলী জেরাল্ড অলিভার গুডা জানান, স্বল্প সময় দিয়ে টেন্ডারটি আহবান করায় তা বাতিল করা হয়েছে। তবে এজন্য তিনি স্টিমিটার মুজাহিদুল ইসলামকে দায়ী করেন। তিনি বলেন, মুজাহিদ টেন্ডারটির প্রক্রিয়া করেছে। এটা ভুল হয়েছে বলে স্বীকারও করেন তিনি। অন্যদিকে স্টিমিটার মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, নির্বাহী প্রকৌশলীর নির্দেশেই টেন্ডারটি এভাবে করা হয়েছে। কারন হিসেবে জানান, নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবনের এ কাজটি আগেই সম্পন্ন করা হয়। তাই নির্ধারিত ঠিকাদারকে কাজটি পাইয়ে দেয়ার জন্যই স্বল্প সময় দিয়ে টেন্ডারটি আহবান করা হয়।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
বাংলা English
Copy link
Powered by Social Snap