বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নলছিটিতে ৫০টি ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতায় এলাকাজুড়ে উৎসব

নলছিটিতে ৫০টি ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতায় এলাকাজুড়ে উৎসব

0 Shares

ইন্দুরকানী বার্তা:
মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ঝালকাঠির নলছিটিতেৃৃ অনুষ্ঠিত হয়েছে ৫০টি ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতা। শুক্রবার বিকেলে ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার কুলকাঠি ইউনিয়নের মল্লিক বাড়ির মাঠে এ আয়োজন করেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও যুব সমাজ। ব্যতিক্রমধর্মী এবং বিশাল সংখ্যক এ ঘোড় দৌড় দেখতে হাজার হাজার মানুষ ভীড় করেন। বসে গ্রামীণ মেলা। ৮টি নয়, ১০টি নয়, একসাথে ৫০টি ঘোড়ার ছুট এর আগে ঝালকাঠির আবাল-বৃদ্ধ বনিতা কেউ কখোনও দেখিনি। আর তাই দুপুর থেকেই দুই হাজারেরও বেশি মানুষ ভীড় করেন নলছিটি উপজেলার কুলকাঠি ইউনিয়নের মল্লিক বাড়ির মাঠে। ঘোড় দৌড়কে কেন্দ্র করে বসে গ্রামীণ মেলাও। তবে সবার দৃষ্টি ঘোড়ার দিকে। ঘোড় দৌড় ছাড়াও ৫০টি ঘোড়া অনেকেই একসাথে এরআগে দেখেনি অনেকে। তাই সবার মাঝে আগ্রহ ছিল ব্যপক। ঝালকাঠির জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ছুটে আসা মানুষের ঢল নামে তাই। নারী-শিশু-বৃদ্ধ সব বয়সের মানুষের মিলন মেলা জমে মাঠের কানায় কানায়।

দর্শনার্থীরা জানান, গ্রাম বাংলা থেকে ঐতিহ্যবাহি ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতা একদম হারিয়ে গেছে বললেই চলে। এমন একটা অবস্থার মধ্যে এতো সুন্দর আয়োজন সত্যিই মনোমুগ্ধকর। তারপরে আবার একসাথে এতোগুলো ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতা সত্যিই অসাধারন। তাই গ্রামীন ঐতিহ্যবাহি এ ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতা দেখতে লোকের ঢল নামে। পুরো এলাকাজুড়ে উৎসবের পরিবেশ তৈরি হয়। আয়োজকরা জানায়, মুজিব জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে প্রথমবারের মত এ আয়োজন করা হয়েছে। মূলত হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতা ধরে রাখতে এবং সকল শ্রেণি বয়সের মানুষকে বিনোদন দিনেই এ আয়োজন। ঝালকাঠির নলছিটির কুলকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বলেন, গ্রামবাসীসহ আশপাশের মানুষকে বিনোদন দেয়া এবং হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য ধরে রাখতে মুজিব বর্ষে এ আয়োজন করা হয়েছে। সন্ধ্যায় প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ী ঘোড়ার সাওয়ারদের পুরস্কৃত করা হয়। প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছেন ঝালকাঠির ভবানীপুরের মোসলেম আলী, দ্বিতীয় হয়েছেন পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলার রাকিব হোসেন এবং বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার নাঈম ইসলাম তৃতীয় হয়েছেন।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
বাংলা English
Copy link
Powered by Social Snap