সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাছ উৎপাদনে আমূল পরিবর্তন এনেছি বললেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

মাছ উৎপাদনে আমূল পরিবর্তন এনেছি বললেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

0 Shares

ইন্দুরকানী বার্তা ডেস্ক :
মাছ উৎপাদনে আমূল পরিবর্তন আনা হয়েছে মন্তব্য করে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বর্তমানে ইলিশ অহরণে বাংলাদেশ পৃথিবীর সেরা অবস্থানে। মিঠা পানির মাছ উৎপাদনে তৃতীয়, স্বাদু পানির মাছ উৎপাদন বৃদ্ধিতে দ্বিতীয় এবং চাষের মাছ উৎপাদনে পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি আয়োজিত নৌ র‌্যালি, ২০২১ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ঢাকার গেন্ডারিয়ায় মিল ব্যারাক নৌ জেটিতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শ ম রেজাউল করিম বলেন, দেশের মাছ চাষের সফলতায় মৎস্যজীবীদের বড় ভূমিকা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মৎস্য খাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছেন। তিনি চান ভাতে-মাছে বাঙালি সংস্কৃতির মাছ যেন বিলুপ্ত না হয়ে যায়। মাছের সংকট যেন না হয়। মাছের মাধ্যমে মানুষের পুষ্টি ও আমিষের চাহিদা যেন মেটানো যায়।

তিনি বলেন, মাছ রপ্তানি করে যেন আমরা বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারি এবং মৎস্য চাষের মাধ্যমে বেকারত্ব দূরের পাশাপাশি তারা যেন উদ্যোক্তা হতে পারে। সেজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বড় বড় প্রকল্প গ্রহণ করেছেন। মৎস্য চাষ এখন গর্বের বিষয়। এটি এখন অর্থ-বিত্তের সুযোগ করে দিচ্ছে।

অনুষ্ঠানে দেশের সমসাময়িক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে শ ম রেজাউল করিম বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী প্রেতাত্মাদের এই বাংলাদেশে উত্থান ঘটতে দেওয়া হবে না। ৭১ এর রাজাকাররা কেউ হেফাজত নামে, কেউ নেজামে ইসলাম নামে, কেউ মুসলীম লীগ নামে নতুন করে দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করছে।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, দেশ যখন শান্তিতে আছে, মানুষের যখন অভাব-অনটন নেই; অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসার সব সুযোগ মিলছে। এ সময় একশ্রেণির লোকদের ভালো লাগছে না। এরা হলো মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি। তারা মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ পছন্দ করে না। শান্তির বাংলাদেশ চায় না। বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ পছন্দ করে না, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ পছন্দ করে না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের যে অপ্রতিরোধ্য গতি তাদের ভালো লাগছে না।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সমালোচনা যেখানেই হবে সেখানে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য মৎস্যজীবী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি মো. সায়ীদুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির কার্যকরী সভাপতি সাইফুল ইসলাম মানিক, সাধারণ সম্পাদক লায়ন শেখ আজগর নস্করসহ অনেকে।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
Copy link
Powered by Social Snap