শনিবার, ২২ Jun ২০২৪, ০৪:৩৯ অপরাহ্ন

এক দোকানে হরেক পণ্যের বেচাকেনা

এক দোকানে হরেক পণ্যের বেচাকেনা

0 Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:
পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে মুদি ও মিষ্টির দোকানে হরহামেশাই বিক্রি হচ্ছে গবাদিপশুর ঔষধ ও খাবার। উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী দীর্ঘদিন ধরে এ কাজ করে আসছে। এ অবস্থা চলতে থাকলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়নি কোন ব্যবস্থা। শুক্রবার সরেজমিনে উপজেলার বাগোলেরহাট বাজারে গিয়ে দেখা যায় একই দোকানে একপাশে মিষ্টি জাতীয় দ্রব্যাদির পাশাপাশি অন্যপাশে শওকত হোসেন বাবুল নামে এক ব্যবসায়ী গবাদিপশুর ঔষধ বিক্রি করছেন। এছাড়া একই বাজারে নজরুল ইসলাম মাতুব্বর মুদি মনোহরির পাশাপাশি গবাদিপশুর খাবার এবং লাইসেন্স ছাড়াই গবাদিপশুর ঔষধ বিক্রি করেছেন। অপরদিকে উপজেলার বালিপাড়া, চন্ডিপুর, ঘোষেরহাট, ইন্দুরকানী, পাড়েরহাট ও পত্তাশী সহ প্রায় সকল বাজারেই মুদি মনোহারির পাশাপাশি গবাদিপশুর খাবার বিক্রি করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে ঔষধ ব্যবসায়ী শওকত হোসেন জানান, একই দোকানে এক পাশে আমার শ্বশুর আলম তালুকদার মিষ্টি সহ বিভিন্ন খাদ্যপন্য এবং আমি অপর পাশে গবাদিপশুর ঔষধ বিক্রি করি। অপর ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম মাতুব্বর জানান, মুদি মনোহারির দোকানে গবাদিপশুর ঔষধ বিক্রি করা ঠিক না। দোকানে গবাদিপশুর ঔষধ রাখা ভুল হয়েছে।
এ বিষয়ে উপজেলা প্রানি সম্পদ কর্মকর্তা হরিস চন্দ্র জানান, খাবার ও মুদিমনোহারির দোকানে গবাদিপশুর খাদ্য ও ঔষধ বিক্রির নিয়ম নেই। খামারিদের কথা চিন্তা করে মুদি দোকান ও খাবারের দোকান থেকে পশু খাদ্য ও ভেটোনারি ঔষধ দ্রুত সরিয়ে নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। আদেশ অমান্য করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার লুৎফুন্নেছা খানম জানান, মুদি দোকান এবং খাবারের দোকানে ভ্যাটেনারী ঔষধ ও গবাদীপশুর খাদ্য বিক্রির বিধান নেই
। তবে এভাবে কেউ বিক্রি করলে তাদরে বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
Copy link
Powered by Social Snap