সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০৪:৩০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কফিন খুলে স্বজনরা দেখলেন, লাশটি পিরোজপুরের রাকিবের নয়!

কফিন খুলে স্বজনরা দেখলেন, লাশটি পিরোজপুরের রাকিবের নয়!

0 Shares

ইন্দুরকানী বার্তা:
ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন কুমিল্লার সাইফুল ইসলাম ও পিরোজপুরে রাকিবুল হাসান। আজ বুধবার তাদের মরদেহ আসে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে।

কিন্তু বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের অবহেলায় সাইফুলের লাশ চলে যায় রাকিবের বাড়িতে। আর রাকিবের লাশ যায় সাইফুলের বাড়িতে। এ ঘটনায় এলাকায় তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

জানা গেছে, পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা ইউনিয়নের চালনা নামাজপুর গ্রামের বাসিন্দা রাকিবুল হাসান (৩০) এবং কুমিল্লার সাইফুল ইসলাম গত ৬ এপ্রিল ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন। আজ সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রাকিবের মরদেহ ফ্রিজিং গাড়িতে করে গ্রামের বাড়ি পিরোজপুর নিয়ে আসা হয়। সেখানে রাকিবের মরদেহ শেষবারের মতো দেখতে অপেক্ষা করছিলেন আত্মীয়-স্বজনরা। কিন্তু কফিন খোলার পর তারা দেখতে পান, মরদেহটি রাকিবের নয়, অন্য কারও।

তারা খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, রাকিবুল হাসানের সঙ্গে সড়ক দুর্ঘটনায় কুমিল্লার সাইফুল ইসলাম নামের আরেক প্রবাসীর মৃত্যু হয়। একই সময় বিমানযোগে দুজনের মরদেহ দেশে আসে। পরে বিমানবন্দরে আত্মীয়-স্বজনদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়। কিন্তু বাক্সের গায়ে ‘নামের ভুলের কারণে’ রাকিবের লাশ সাইফুলের পরিবারের কাছে এবং সাইফুলের লাশ রাকিবের পরিবারের কাছে চলে যায়।
পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আ জ ম মাসুদুজ্জামান জানান, ঘটনা শোনার পরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরে তাৎক্ষণিকভাবে কুমিল্লার সাইফুলের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে দ্রুত রাকিবের মরদেহ বহনকারী ফ্রিজিং গাড়ি পিরোজপুরে এবং সাইফুলের মরদেহ বহনকারী গাড়ি কুমিল্লায় পাঠানো হয়েছে।

রাকিবের বাবা ও তাদের স্বজনদের অভিযোগ, বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের চরম অবহেলা ও গাফিলতির কারণে রাকিবের পরিবারকে এই হয়রানির শিকার হতে হয়েছে।

রাকিবের স্বজনরা জানান, প্রায় এক বছর আগে রাকিবুল হাসান ওমানে পাড়ি জমান। ছয় মাসের যমজ শিশুসহ তিন মেয়ে রয়েছে তার। আজ বিকেলে আসরের নামাজের পর গ্রামের বাড়িতে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে রাকিবের লাশ দাফন করা হয়।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
Copy link
Powered by Social Snap