মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০২৪, ০৩:৫৮ অপরাহ্ন

ইন্দুরকানীতে “স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা দৃঢ়ীকরণে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের গুরুত্ব” শীর্ষক সেমিনার

ইন্দুরকানীতে “স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা দৃঢ়ীকরণে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের গুরুত্ব” শীর্ষক সেমিনার

0 Shares

জে আই লাভলু:
পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে জিটুপি পদ্ধতিতে ভাতা প্রদান জনগণের দোরগোড়ায় সমাজসেবা, “সকল ভাতা কর্মসূচির স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা দৃঢ়ীকরণে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের গুরুত্ব” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় উপজেলা প্রশাসনিক হলরুমে ইন্দুরকানী উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় দিনব্যাপী এ সেমিনারের আয়োজন করেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: আবুবক্কর সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে এবং উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মশিদুল হকের সঞ্চালনায় এতে আলোচনায় অংশ নেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকেট এম মতিউর রহমান, পিরোজপুর জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোঃ ইকবাল কবির, সহকারি পরিচালক ইব্রাহিম খলিল, ৩ নং বালিপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেন বয়াতি, ১ নং পাড়েরহাট ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান শাওন, বালিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মতিউর রহমান ও প্রেসক্লাব সভাপতি এইচ এম ফারুক হোসাইন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস- চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাগা, চন্ডিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মঞ্জু, ইন্দুরকানী রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি জে আই লাভলু সহ বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য ও সচিবগণ। সেমিনারে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মোট তিরিশ জন ব্যক্তি অংশগ্রহণ করেন।

আলোচনায় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে দেয়া ভাতা ভোগীর সংখ্যার তথ্য চিত্র তুলে ধরেন জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ইকবাল কবির ও উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মশিদুল হক।
তারা জানান, সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক নয় ক্যাটাগরিতে বর্তমানে বাংলাদেশের এক কোটি পনেরো লাখ লোককে ভাতা প্রদান করা হচ্ছে। দেশের হিজড়া সম্প্রদায় ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীকেও ভাতার আওতায় এনেছে বর্তমান সরকার। এছাড়া সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক ছয়টি জটিল রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা সহায়তা হিসেবে ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হচ্ছে।

তারা আরো জানান, দেশে জন প্রতি মাসিক ছয়’শ টাকা করে বয়স্ক ভাতা পাচ্ছেন ৫৮ লাখ ১ হাজার জন, জনপ্রতি মাসিক ৫৫০ টাকা করে বিধবা ও স্বামী নিগৃহীতা মহিলা ভাতা পাচ্ছেন ২৫ লক্ষ ৭৫ হাজার জন, জনপ্রতি মাসিক ৮৫০ টাকা হারে অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা পাচ্ছেন ২৯ লাখ ব্যক্তি, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য প্রাথমিক স্তরে ৯০০ টাকা, মাধ্যমিকের স্তরে ৯৫০ টাকা, উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে ৯৫০ টাকা এবং উচ্চতর স্তরে ১৩০০ টাকা করে মোট এক লক্ষ শিক্ষার্থী এ শিক্ষা উপবৃত্তি পাচ্ছেন।

বর্তমানে ইন্দুরকানী উপজেলায় বয়স্ক ভাতাভোগীর সংখ্যা ৪৬৭৫ জন, বিধবা ভাতা ২০১৯ জন, অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতাভোগী ১৫৫২ জন এবং প্রতিবন্ধী শিক্ষা উপবৃত্তি গ্রহণকারী ১০৪ জন ছাত্র-ছাত্রী ভাতা পাচ্ছেন ।
সমাজসেবা কর্তৃক চালুকৃত নয় ক্যাটাগরির মধ্যে ছয় ক্যাটাগরিতে ৮ হাজার ৫৮৯ জন ব্যক্তি বর্তমানে বিভিন্ন প্রকার ভাতা পাচ্ছেন।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
Copy link
Powered by Social Snap