সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০৩:১৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আ.লীগের কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করলে ব্যবস্থা : আব্দুর রহমান

আ.লীগের কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করলে ব্যবস্থা : আব্দুর রহমান

0 Shares

অনলাইন ডেস্ক:
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ফরিদপুর-১ (বোয়ালমারী-আলফাডাঙ্গা-মধুখালী) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবদুর রহমান বলেছেন, ডামি ও স্বতন্ত্র বা বিদ্রোহী প্রার্থী এক নয়। প্রধানমন্ত্রী যে ডামি প্রার্থী রাখতে বলেছেন সেটা সব জায়গায় নয়। যেসব আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ব্যতীত অন্য কেউ মনোনয়ন জমা নাও দিতে পারেন এমনটি অনুমেয় হলে সংশ্লিষ্ট আসনের নৌকার প্রার্থী নিজ দলে কাউকে প্রার্থী মনোনীত করবেন- এমনটাই বোঝানো হয়েছে। আগামী ১৭ ডিসেম্বর প্রত্যাহারের শেষ তারিখ। ওই সময়ের মধ্যে প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করলে এবং আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের পদ-পদবিধারী কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করলে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রোববার (৩ ডিসেম্বর) ফরিদপুরে জেলা আওয়ামী লীগের এক বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় হলরুমে এ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আব্দুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করে কেউ কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নৌকাকে পরাজিত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। এটা দলীয় শিষ্টাচারের মধ্যে পড়ে না। তারা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করছেন।

দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রকারীরা সক্রিয় রয়েছেন জানিয়ে মো. আব্দুর রহমান বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা নির্বাচনের আগেও ষড়যন্ত্র করেছে, চলাকালেও করবে আবার নির্বাচন শেষ হয়ে গেলেও ষড়যন্ত্র করবে। স্বতন্ত্র প্রার্থীদের অনেকেই সেই এজেন্ডা বাস্তবায়ন যুক্ত থাকতেই পারে। ষড়যন্ত্রকারীরা শেখ হাসিনাকে হটিয়ে তাদের মনোনীতদের মসনদে বসাতে চায়।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু-শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের আদর্শের মানুষেরা কখনোই নৌকার বাইরে কাজ করতে পারে না। সবাইকে দলীয় সভানেত্রীর সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করে বিজয়ী করার আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, পদ-পদবি না থাকলেও আওয়ামী লীগের পরিচয় বহনকারী কেউ এমন কাজ করলে তাদের জন্য চিরতরে দরজা বন্ধ হয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানের সভাপতি ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ফরিদপুর-৩ (সদর) আসনের নৌকার প্রার্থী শামীম হক বলেন, বিএনপি জামায়াতকে রাজপথে তাদের (স্বতন্ত্র প্রার্থী) দেখা না গেলেও তারা এখন প্রার্থী হয়েছেন। দলীয় নেতাকর্মীদের ভুল বোঝাচ্ছেন দাবি করে এসব পরিহার করে আওয়ামী লীগের পক্ষ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

এদিকে ফরিদপুর-২ (সালথা-নগরকান্দা) আসনের নৌকার প্রার্থী শাহদাব আকবর লাবু বলেন, নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ করার জন্য ডামি প্রার্থী দিতে গণভবনে কথা হলেও একজন আওয়ামী লীগ নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নিজেকে আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী দাবি করে নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। এতে দল ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

বর্ধিত সভায় ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ মো. ইশতিয়াক আরিফ,বোয়ালমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এম মোশাররফ হোসেন মুশা মিয়া,সালথা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো.ফকির মিয়াসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বক্তব্য রাখেন।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
Copy link
Powered by Social Snap