সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন

নাজিরপুরে প্রতারনার শিকার হয়ে এক নারীর মামলা দায়ের

নাজিরপুরে প্রতারনার শিকার হয়ে এক নারীর মামলা দায়ের

0 Shares

 

শামসুল আরেফিন, নাজিরপুর  :

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ফার্মাসিষ্ট কবিতা রানী গাইন (৪০)  প্রতারক স্বামী প্রদীপ কুমারের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। গত ৬ সেপ্টেম্বর পিরোজপুর সিনিয়র চীফ জ্যুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন তিনি।

কবিতা রানী গাইন  জানান, ২০০৬ সালে দ্বিতীয় স্বামী মাষ্টার প্রদীপ কুমার তার পূর্বের স্বামী  নির্মল হালদারের সাথে বন্ধুত্বের সূত্র ধরে বাসায় যেতেন একমাত্র সন্তান নয়নকে পড়ানোর জন্য। তখন ঐ মাষ্টার উপজেলার নাওটানা সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক ছিলেন । এ সময় কবিতা রানী গাইন নাজিরপুর হাসপাাতালে চাকুরি করেন এবং তার পূর্বের স্বামী নাজিরপুর প্রানী সম্পদ হাসপাতালে চাকুরি করেন এবং গ্রামের বাড়ী গিলাতলায় থাকেন। শিক্ষক প্রদীপ বাড়িতে আসা যাওয়ার সুযোগে পূর্বের স্বামী বাড়িতে নিয়মিত না থাকার কারনে শিক্ষক প্রদীপ শিক্ষার্থীর মাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অযুহাতে অর্থের লেনদেন করেন যা পূর্বের স্বামী জানত না।

এদিকে বিভিন্ন সময়ে আসা যাওয়ার সুবাধে এক পর্যায় উভয়ের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কের ঘটনা ঘটে। গত ২০০৮ সালের ৫ মেয়ে  ঐ শিক্ষক তার পূর্বের স্বামীকে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে তালাক প্রদান করান এবং২০০৮ সালের ২৪ ডিসেম্বর  স্থানীয় পুরোহীত কর্তৃক হিন্দু সনাতন ধর্মীয় মতে বিবাহে আবদ্ধ হলে পরবর্তীতে  ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়। পরে কবিতা রানির পূর্বের স্বামীর খরিদ করে দেওয়া বাড়ীর জায়গা কৌশলে তার স্বামী নিজ নামে দলিল রেজি: করে নিয়ে নেয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন । অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন ঐ জায়াগায় বাড়ীর ইমারত করায় কবিতার কাছ থেকে সোনালী ব্যাংক ও তার নিজ চাকুরির জিবি ফান্ড দিয়েও লোন উত্তোলন করে নেয় সুচতুর স্বামী  প্রদীপ। উক্ত টাকা দিতে না পারলে নোটারি পাবলিকের এফিডেভিটে ঐ বাড়ি কবিতার  হবে বলে ঘোষনা করেন। পূর্বের স্বামীর মৃত্যুর পরে  স্বামী প্রদীপ কতিবার দেওয়া সকল অর্থ ও সম্পত্তি হজম করার উদ্দেশ্যে বিনা অনুমতিতে গোপনে পুনরায় দ্বিতীয় বিবাহ করেন বর্তমানে প্রতারক স্বামী হোগলাবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসাবে আছেন। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ২ নং মালিখালী ইউনিয়ন চেয়াম্যান এর গ্রাম্য আদালতে মামলা দায়ের করলে সংশ্লিষ্ট চেয়ারম্যান উচ্চ আদালতে মামলা দায়ের করার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন ।  কবিতা এ ব্যাপারে গত ৬ সেপ্টেম্বর পিরোজপুর সিনিয়র চীফ জ্যুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করলে  আদালত মামলাটি সুষ্ঠ তদন্তের জন্য বিপিআইকে দায়িত্ব দেন ।  কবিতা রানী  তার সহয় সম্বল হারিয়ে এখন দিশেহারা এবং তিনি প্রতারনার জন্য তার স্বামীর বিচার দাবি করেছেন।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
Copy link
Powered by Social Snap