শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন

রাজধানীর রেস্টুরেন্টে আবারও মদের পার্টি

রাজধানীর রেস্টুরেন্টে আবারও মদের পার্টি

0 Shares

ইন্দুরকানী বার্তা ডেস্ক : উত্তরার ব্যাম্বু স্যুট রেস্টুরেন্টে মদ্যপানে ইউল্যাবের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর রাজধানীর বার ও রেস্টুরেন্টগুলোতে অনুমোদন ছাড়া মদ বিক্রি ও পানের আয়োজন না করতে কড়া নির্দেশনা দিয়েছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। প্রশাসনের এমন নির্দেশনা উপেক্ষা করে শ্যামলীস্থ হলিউড নামে একটি রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ উঠতি বয়সের তরুণদের কাছে মদ বিক্রি ও মদ্যপান করার জায়গা দিয়েছে বলে সম্প্রতি অভিযোগ উঠে।

অভিযোগের ভিত্তিতে রেস্টুরেন্টটিতে অভিযান পরিচালনা করে ৩৫২ বোতল মদ ও ৪৪৩ ক্যান বিয়ার ও ২১ হাজার টাকা জব্দ করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। এছাড়া রেস্টুরেন্ট থেকে তিনজনকে আটকও করেছে তারা। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) র‍্যাব ২ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি মো. আবদুল্লাহ আল মামুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমাদের কাছে তথ্য ছিল হলিউড রেস্টুরেন্ট লিমিটেড নামক বার ও রেস্টুরেন্টটি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের লাইসেন্সে উল্লিখিত মাদক মজুদের চেয়ে অতিরিক্ত মজুদ এবং লাইসেন্সবিহীন ও অপ্রাপ্তবয়স্কদের কাছে মদ বিক্রি করছে। এ সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার ভোরে রেস্টুরেন্টটিতে আমরা অভিযান পরিচালনা করে দেখি প্রায় ৫০ জন অপ্রাপ্তবয়স্ক তরুণ সেখানে মদ্যপান ও পার্টি করছিল। যারা মদপান করছিল, তাদের মধ্যে মাত্র একজনের লাইসেন্স পাওয়া যায়। তবে তিনি অপ্রাপ্তবয়স্ক ছিলেন না।

তিনি বলেন, রেস্টুরেন্টটির মাদক বিক্রির হিসাব খাতায় পরীক্ষা করে দেখা যায়, তারা চলতি মাসে মাত্র ৫টি বিয়ার ক্যান বিক্রি করেছে। কিন্তু অভিযানে আমরা কয়েকশ বিয়ারের খালি ক্যান দেখতে পাই। এছাড়া লাইসেন্সে উল্লিখিত মাদক মজুদের চেয়ে অতিরিক্ত মজুদ করেছে রেস্টুরেন্টটি। হলিউড শুরুর দিকে শুধুমাত্র রেস্টুরেন্টই ছিল, কিন্তু এক থেকে দেড় বছর আগে তারা বারের লাইসেন্স নেয়। তবে তারা বারের লাইসেন্স নিলেও প্রতিষ্ঠানটির নামফলকে বার শব্দটি ব্যবহার করেনি। বারের বিষয়টি কেন তারা আড়াল করতে চেয়েছে আমরা তদন্ত করে দেখছি।

রাজধানীর রেস্টুরেন্টে আবারও মদের পার্টি

তিনি আরও বলেন, আটকরা আমাদের জানায়, তারা অনেক দিন ধরেই অবৈধভাবে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের নির্দেশিত নীতিমালার বাইরে মাদক মজুদ ও ক্রয়-বিক্রয় করে আসছিল। এ ঘটনায় রেস্টুরেন্টের মালিক মো. সাগর মিয়াসহ চারজনকে আসামি করে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। মামলার বাদী হচ্ছে র‍্যাব ২ এর আভিযানিক দল।

এর আগে গত ২৮ তারিখ ইউল্যাবের দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী তার ৪ বন্ধুসহ উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের ব্যাম্বু স্যুট রেস্টুরেন্টে যান। রেস্টুরেন্টে তারা পাঁচজন এক হয়ে মদ্যপান করেন। একপর্যায়ে ঐ শিক্ষার্থীর বান্ধবী নেহা অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং রেস্টুরেন্টের টয়লেটে গিয়ে বমি করেন। তখন নেহা ও তার এক বন্ধু চলে যান। পরে রেস্টুরেন্টে ঐ শিক্ষার্থী তার দুই বন্ধু আরাফাত ও রায়হান মদ্যপান করতেই থাকে। এক পর্যায়ে ঐ তরুণী টয়লেটে গিয়ে বমি করেন। এ অবস্থা দেখে রায়হান ও আরাফাত ওই তরুণীকে নিয়ে একসঙ্গে রেস্টুরেন্ট থেকে বের হয়ে একটি উবার নেয়। এ ঘটনায় ঐ তরুণী গত ৩১ জানুয়ারি রাজধানীর আনোয়ার খান মডেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও তার বন্ধু আরাফাত সিটি হাসপাতালে মারা যান। এ ঘটনায় ঐ শিক্ষার্থীর বাবা মোহাম্মদপুর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন।





প্রয়োজনে : ০১৭১১-১৩৪৩৫৫
Design By MrHostBD
Copy link
Powered by Social Snap